২৪ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও সন্ধান পাওয়া গেল না সুবর্ণরেখা নদীতে তলিয়ে যাওয়া বৃদ্ধার


মঙ্গলবার,১০/০৯/২০১৯
1963

ঝাড়গ্রাম : ২৪ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও সন্ধান পাওয়া গেল না সুবর্ণরেখা নদীতে তলিয়ে যাওয়া বৃদ্ধার। তাঁর নাম শৈলবালা সাউ(৮০)। বাড়ি ঝাড়গ্রাম জেলার গোপীবল্লভপুর ২নং ব্লকের চোরচিতা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঁশঝোড়া গ্রামে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাঁশঝোড়া গ্রামটি একেবারে সুবর্ণরেখা নদীর তীরবর্তী। আর ওই বিধবা বৃদ্ধার বাড়িও নদীর কাছেই। গত সোমবার সন্ধ্যা পৌঁনে সাতটা  নাগাদ বৃদ্ধা সুবর্ণরেখা নদীতে তলিয়ে যায়। ছেলে ও বৌমার সঙ্গেই বাড়িতেই থাকতেন বৃদ্ধা শৈলবালা। তাঁর ছেলে ভিকারি সাউ বলেন,‘গতকাল সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ আমার স্ত্রী মাকে খেতে দিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গ্রামের অন্য লোকের বাড়িতে যায়। সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ আমি বাড়ি এসে দেখি ঘরে মা নেই। চারিদিকে খোঁজাখুঁজি করে দেখি কোথাও পাওয়া যায়নি। তারপর আলো নিয়ে নদীর পাড়ে মায়ের পায়ের চিহ্ন দেখতে পাই। গ্রামের বাসিন্দারাও রাতেই নদীতে খোঁজ করেও পায়নি।’

এদিন ঝাড়গ্রাম থেকে বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরা সকাল থেকেই স্পিড বোর্ডের মাধ্যমে সুবর্ণরেখা নদীতে বৃদ্ধার খোঁজে তল্লাশি চালালে এখনও পর্যন্ত কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট