রাত পোহালেই বড়দিন


মঙ্গলবার,২৪/১২/২০১৯
455

বাংলা এক্সপ্রেস ডিজিটাল ডেস্ক ; ---

সান্তা ক্লজের আগমনের সময় আসন্ন ।শহর মেতে উঠবে উৎসবের আবহে। অনেক দেশেই বড়দিন বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়স্বজনদের মধ্যে উপহার আদানপ্রদানের মরসুম। বড়দিন ও উপহার আদানপ্রদানের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত একাধিক খ্রিষ্টীয় ও পৌরাণিক চরিত্রের উদ্ভবের সঙ্গেও বড়দিন উৎসব অঙ্গাঙ্গীভাবে যুক্ত।বিশ্বের অধিকাংশ রাষ্ট্রেই বড়দিন একটি প্রধান উৎসব তথা সরকারি ছুটির দিন হিসেবে পালিত হয়।25 শে ডিসেম্বর যীশুর জন্মদিন । এদিন খ্রীস্ট ধর্মাবলম্বীরা বড়দিন হিসাবে পালন করে । শুধু ইউরোপে নয়, পৃথিবীর প্রায় বেশির ভাগ দেশে এই উৎসব পালিত হয় । এই সময় পথঘাট আলোর মালায় সাজানো হয়, রঙিন কাগজ দিয়ে ঘর সাজানো হয় । বাড়ির সামনে ক্রীসমাস ট্রি বসানো হয় । ক্রীসমাস বুড়ো অর্থাৎ স্যান্টাক্লজ, যে আনন্দের দূত গোপনে প্রত্যেক বাড়িতে বাড়িতে এসে উপহার দিয়ে যায় । পার্কস্ট্রিট, অ্যালেন পার্ক, সেন্ট পলস ক্যার্থিডাল প্রতি বছর সেজে ওঠে ক্রিসমাসের দিন। বড়দিনের অপেক্ষায় প্রহর গুনছে শহরবাসী। রংবাহারী আলো সাথে উৎসবের মেজাজে চিরকাল থাকতে ভালোবাসে মহানগর।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট