আইটি দপ্তরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি করা হল সারদাকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত পুলিশকর্তা রাজীব কুমারকে


শুক্রবার,২৭/১২/২০১৯
330

রাজ্য প্রশাসনের বড়সড় রদবদল।অবাক করে দেওয়ার মতন রদবদল হলো নবান্নে।আইপিএস অফিসার তথা সিআইডির অ্যাডিশনাল ডিজি রাজীব কুমারকে পুলিশ প্রশাসন থেকে নিয়ে আসা হল রাজ্য প্রশাসনে।আইটি দপ্তরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি করা হল সারদাকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত পুলিশকর্তা রাজীব কুমারকে। একটি সূত্র বলছে, আগামী দিনে রাজ্য প্রশাসনের শীর্ষে দেখা যেতে পারে তাকে। সেই পথেই সুগম হলো রাজিব কুমারের এই বদলিতে।
বৃহস্পতিবার রাতের দিকে নবান্নের তরফের রাজ্য প্রশাসনের একাধিক আধিকারিকের বদলি নির্দেশিকা জারি করা হয়।

সেখানেই চমকে দেওয়ার মতো নাম ছিল রাজিব কুমারের।একজন পুলিশ আধিকারিককে রাজ্য প্রশাসনের নিয়ে আসার ক্ষেত্রে স্বাভাবিকভাবেই অবাক করেছে অনেককে।যদিও একজন আইপিএস অফিসার কোন দপ্তরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি হচ্ছেন এটা অবশ্য নতুন নয়। এর আগে রাজ কোনজিয়া এবং সঞ্জয় মুখার্জী দুজনেই কারা দপ্তরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি পদ সামলেছেন। উভয়ই আইপিএস। কিন্তু কারা দপ্তর এর বাইরে অন্য কোন দপ্তরে প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি হিসেবে কোন আইপিএস অফিসার কে বসানোর রেওয়াজ রাজ্য প্রশাসনে নেই বলেই দাবি করছেন অনেকে। ক্ষেত্রে একজন আইপিএস হিসেবে রাজিব কুমারের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি হওয়া অবশ্য নজিরবিহীন কিছু নয়, কিন্তু তাক লাগানো বটেই।

কিন্তু সারদাকাণ্ডে যেভাবে তার নাম জড়িয়েছে একাধিক দফায় সিবিআই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে, তাকে ঘিরে লোকসভা ভোটের আগে এবং পরবর্তী সময়ে যেভাবে বিতর্ক তৈরি হয়েছে সব কিছুর মাঝেই রাজীব কুমারের আই টি দপ্তরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি হওয়া অবশ্যই তাৎপর্যপূর্ণ।জানিয়ে রীতিমতো গুঞ্জন নবান্নের অলিন্দের।একটি সূত্র বলছে, আগামী দিনে স্বরাষ্ট্র সচিব করা হতে পারে রাজীবকে।সেই জায়গা থেকেই রাজ্য প্রশাসনের দরজা তার জন্য খুলে দেওয়া হলো।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট