যুগাচার্য প্রণবানন্দের মূর্তি উন্মোচন মধ্যমগ্রামে


শনিবার,২৫/০১/২০২০
414

প্রণব কন্যা সংঘের চার দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে মহামিলনের বার্তা দিলেন ভারত সেবাশ্রম সংঘের প্রধান সম্পাদক স্বামী বিশ্বাত্মানন্দ মহারাজ। উন্মোচন করা হলো প্রণবানন্দ মহারাজের মর্মর মূর্তি। সেই সঙ্গে আয়োজন করা হয়েছিল বর্ণা শোভাযাত্রার।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের মধ্য দিয়ে ধর্মীয় বিভাজন সৃষ্টি করা হয়েছে এই অভিযোগে যখন গোটা দেশ তোলপাড় ঠিক সেই সময় সারাদেশে মহামিলনের আহ্বান জানালেন ভারত সেবাশ্রম সংঘের প্রধান সম্পাদক স্বামী বিশ্বাত্মানন্দ মহারাজ। যুগাচার্য প্রণবানন্দ মহারাজের ১২৫ তম জন্মবর্ষ ও প্রণব কণ্যা সংঘের অর্ধশত বর্ষ উপলক্ষে মধ্যমগ্রামের সাহেব বাগান প্রণব কণ্যা সংঘে চলছে চার দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান।

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। প্রণব কন্যা আশ্রমের সন্ন্যাসীনীরা ছাড়াও এই শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে সমাজের বিশিষ্টজনেরা। যুগাচার্য স্বামী প্রণবানন্দ মহারাজের ১২৫ তম বর্ষ উপলক্ষে সাহেব বাগানে তাঁর একটি মূর্তির আবরণ উন্মোচন করা হয়। মূর্তির উন্মোচন করেন স্বামী মাধবানন্দ মহারাজ। প্রণবকণ্যা সংঘের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে স্বামী বিশ্বাত্মানন্দ মহারাজ বলেন, ১০০ বছর আগে তিনি যে মিলন, মহা সমন্বয়ের কথা বলেছিলেন, ত্যাগের কথা বলেছিলেন তা সকলের মধ্যে সঞ্চারিত হোক।

অনুষ্ঠানে ধর্ম আলোচনা থেকে শুরু করে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। প্রণব কণ্যা সংঘের সভানেত্রী শুদ্ধানন্দময়ী মা, সহ-সভানেত্রী জ্ঞানানন্দময়ী মা, মধ্যমগ্রাম প্রণব কণ্যা সংঘের সভানেত্রী অমৃতানন্দময়ী মা ও সম্পাদিকা পরমানন্দময়ী মা সহ সন্ন্যাসিনী, ব্রহ্মচারিণী, সেবিকা ও ভক্তবৃন্দের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠান হয়ে উঠেছিল মৈত্রীবন্ধন।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট