লকডাউনে আটকে পড়ে খাদ্যসঙ্কটে কাশ্মীরি শালওয়ালারা


সোমবার,০৪/০৫/২০২০
1235

লকডাউন আটকে পড়ে কাশ্মীরি শালওয়ালারা অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন, পেটের টানে সুদূর কাশ্মীর থেকে প্রতিবছর এই বাংলায় ছুটে আসেন কাশ্মীরি শালওয়ালারা। জুবের, এরশাদ, গুলাম, সাবিররাও আড়াই হাজার কিলোমিটার দূরবর্তী কাশ্মীরের হাজরাবাদ থেকে এসেছিলেন এরাজ্যের নদীয়ার শিমুরালির রাউতাড়ি এলাকায়। করোনা মোকাবিলায় হঠাৎ করেই দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। নিজের ঘরে ফিরে যাওয়ার আর কোনো সুযোগই পাননি তারা। লকডাউনের কারণে হারিয়েছেন রুজিরুটি। টানা ঘরবন্দি। ফুরিয়েছে জমা রসদ। এই পরিস্থিতিতে একবেলা খেয়ে কখনো না খেয়ে দিন যাপন করতে হচ্ছে তাদের।

বাড়িতে বাবা অসুস্থ। প্রতিদিন ডায়ালিসিস করাতে হয়। কি অবস্থা এই ঘরে ফেরার খুবই দরকার। কিন্তু কীভাবে ফিরবেন? বাড়ির কথা ভেবে ভেবে এখন রাতের ঘুমও গিয়েছে চলে।

কাশ্মীরের নাগরিকদের পাশে দাঁড়ালেন বিশ্বনাগরিক মাইকেল তরুণ। লকডাউনের জেরে শ্রীনগরে ফিরতে পারছেন তারা। প্রতিবছর তারা শাল বিক্রি করতে নদীয়ার শিমুরালি এলাকায় আসেন। কিন্তু লকডাউনের জেরে এবার তারা এখানেই রয়েছেন। আর্ট মাদার আর্থ ফাউন্ডেশনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক মাইকেল তরুণের উদ্যোগে তাদের হাতে চাল, ডাল, তেল, নুন সহ খাদ্যসামগ্রী তুলে দেওয়া হল।
খুব সঙ্কটে পড়েছেন তারা ।তরুণ বাবুর উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন কাশ্মীরী মানুষেরা।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট