পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যুতে রাজ্যকে একযোগে আক্রমণ বাম-কংগ্রেস বিজেপির


শনিবার,০৯/০৫/২০২০
232

পশ্চিমবঙ্গের কয়েক হাজার পরিযায়ী শ্রমিক দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে রয়েছেন। হঠাৎ করে লকডাউন ঘোষণা হওয়ায় তারা ঘরে ফিরতে পারেননি। ভিন রাজ্যে না খেতে পেয়ে একপ্রকার করুন অবস্থা তাদের। তাদের ঘরে ফেরানোর জন্য বিরোধী দলগুলোর পক্ষ থেকে বারবার আবেদন জানানো হচ্ছে। বাম কংগ্রেস ও বিজেপির অভিযোগ রাজ্য সরকার উদ্যোগী ভূমিকা গ্রহণ না করায় পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো সম্ভব হচ্ছে না। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যের ফিরিয়ে আনা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছিলেন। ভিন রাজ্যে আটকে পড়া পড়ুয়াদের ফিরিয়ে আনার কথা বলেছিলেন। সেই মতো কয়েক হাজার পড়ুয়া ও পরিযায়ী শ্রমিক দুটি ট্রেনে করে রাজ্যে ফিরলেও বাকিরা আটকে রয়েছেন। বাম কংগ্রেস ও বিজেপির অভিযোগ রাজ্য সরকার আর কোনো তৎপরতা দেখাচ্ছে না। এরইমধ্যে রেলের ভাড়া কে দেবে তা নিয়ে একটা বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। তৃণমূলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয় কেন্দ্রীয় সরকার এইসব পরিযায়ী শ্রমিকদের কাছ থেকে রেলের ভাড়া নিয়েছে। এই নিয়ে তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে তরজা তুঙ্গে ওঠে।

শনিবার সিপিএমের পক্ষ থেকে রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকারকে টার্গেট করে কামান দেখেছে। রাজ্যেরর সরকারের পক্ষাঘাত হয়েছে। রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর ব্যাপারে কিছুই করছে না। পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরানো নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার এবং রাজ্য সরকার ঝুটঝামেলা করছে। এই ভাষাতেই রাজ্য-কেন্দ্রকেই আক্রমণ করলেন সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে না রাজ্য সরকার। অভিযোগ তাঁর।
এরাজ্যের বিজেপি নেতারা অবশ্য কেন্দ্রকে কোন দোষ দিতে রাজি নন। টার্গেট মমতার সরকার এর দিকেই।
বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর ব্যাপারে শীত ঘুমে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার কলকাতায় এই অভিযোগ করেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা। তিনি বলেন সারা দেশে প্রায় ২ লক্ষের কাছাকাছি পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়েছে কেন্দ্র। কিন্তুু বাংলার বহু পরিযায়ী শ্রমিক এখনও ভিনরাজ্যে আটকে আছে। কেন্দ্রীয় সরকার বারবার বাংলার শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর কথা রাজ্য সরকারকে বলছে। রাজ্য সরকার কোন পদক্ষেপ গ্রহন করছে না বলে জানান বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক।

এদিকে প্রদেশ কংগ্রেসের তরফ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরানোর ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকার বা রাজ্য সরকার কেউই কোনো দায়িত্ব পালন করছে না। যেটুকু ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে তা কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর উদ্যোগেই। শনিবার এমনটাই জানালেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। তিনি বলেন কেন্দ্রের শাসকদল ও রাজ্যের শাসকদলের তাবেদাররা পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরানো নিয়ে নোংরা রাজনীতির খেলা খেলছে। একমাত্র কংগ্রেস শাসিত রাজ্য গুলিতেই উদ্যোগী ভূমিকা পালন করছেন সেখানকার মুখ্যমন্ত্রীরা। দাবি সোমেন মিত্রের।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট