লকডাউনে বাড়ি ফিরতে না পেরে মোবাইলে মেয়ের বিয়ে দেখলেন বাবা,মেয়েকে দূর থেকেই সম্প্রদান ও আশীর্বাদ করলেন


বুধবার,১৭/০৬/২০২০
1012

ঝাড়গ্রাম:- লকডাউনে বাড়ি ফিরতে না পেরে মোবাইলে মেয়ের বিয়ে দেখলেন বাবা। কন্যাদান করলেন দাদু। এমনই ঘটনার সাক্ষী থাকল ঝাড়গ্রামের শক্তিনগর এলাকা। সরকারি বিধি মেনেই পালিত হয় বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠান। শক্তিনগরের বাসিন্দা স্বপন থাকেন ওয়ার্ধায় একটি কারখানায় শ্রমিকের কাজ করেন। পরিযায়ীরা ঘরে ফিরলেও স্বপন ফেরেননি। কারণ, যাঁরা ফিরে গিয়েছেন, কারখানায় তাঁদের পুনর্বহালের সম্ভাবনা ক্ষীণ বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। কারখানার একটি ইউনিট চালু রয়েছে। সেখানে ডিউটি করছেন স্বপন। মেয়ের বিয়ের ঠিক হয়ে গিয়েছে। মঙ্গলবার বিয়ের দিনে হাজির থাকতে পারেননি স্বপন। তাতে অবশ্য বিয়ে আটকায়নি। প্রযুক্তির দৌলতে ভিডিয়ো কলিংয়ের সাহায্যে মেয়েকে দূর থেকেই সম্প্রদান ও আশীর্বাদ করলেন স্বপন। স্বপনের অবশ্য নিজের অ্যান্ড্রয়েড ফোন নেই।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, শক্তিনগর এলাকার বাইশ বছরের পার্বতীর সঙ্গে এদিন বিয়ে হয় ঝাড়গ্রাম জেলার বেলিয়াবেড়া ব্লকের পেটবিন্ধি বাসিন্দা দ্বীপ বেরার। দ্বীপ পেশায় ঝাড়গ্রাম জেলাশাসকের অফিসের অস্থায়ী কর্মী। দ্বীপের সঙ্গে কয়েক বছর আগে পরিচিত হয় পার্বতীর। এরপর উভয় পরিবারের মধ্যে দেখাশোনা করে লকডাউনের আগে বিয়ের দিন ধার্য হয়। কিন্তু সব কিছু ওলোটপালট করে দেয় লকডাউন।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট