প্রায় পাঁচ কিলোমিটার ব্যাপী ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর তৈরি হতে যাচ্ছে আপৎকালীন যুদ্ধ বিমান ওঠানামার ব্যবস্থা


বুধবার,০২/০৯/২০২০
729

পশ্চিম মেদিনীপুর:-ভারতীয় বায়ুসেনা ও জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের যৌথ উদ্যোগে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বেলদা থানার বাখরাবাদ থেকে পোক্তাপুল পর্যন্ত প্রায় পাঁচ কিলোমিটার ব্যাপী ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর তৈরি হতে যাচ্ছে আপৎকালীন যুদ্ধ বিমান ওঠানামার ব্যবস্থা। ইতিমধ্যে এর জন্য ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের দু দিকে থাকা বড় বড় গাছ গুলিকে কেটে রাস্তা সম্প্রসারণের কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। চলছে মাপ ঝোকের প্রক্রিয়া। ভারত পাকিস্তান কিংবা ভারত চীন সীমান্ত এলাকাগুলিতে যখন উত্তেজনার পারদ ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে, সেই সময় দেশের ভেতরে মোট তেরোটি জায়গায় এই আপত্কালীন যুদ্ধ বিমান ওঠানামার ব্যবস্থা শুরু হয়ে গেল।এর জন্য জাতীয় সড়কের প্রস্তাবিত এলাকার দু দিকে প্রায় তিরিশ মিটার মতন যায়গা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

জাতীয় সড়কের মাঝখানে যে অংশটিতে ফুলের চারা লাগানো অংশ ছিল সেগুলিও সম্পূর্ণ ভরাট করে এই আপত্কালীন রানওয়ে তৈরি হবে।পাঁচ কিলোমিটার ব্যাপী এই জাতীয় সড়কে তৈরি হওয়া রানওয়ের মধ্যে থাকবে স্বয়ংক্রিয় কিছু অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার বলে জানা গেছে।প্রসঙ্গত এই প্রস্তাবিত এলাকায় বহু দিন আগে এই পরিকল্পনা থাকলেও বিভিন্ন কারণে তা আটকে ছিল। অবশেষে সীমান্ত এলাকার উত্তেজনার পারদ যখন ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে সেই দিকের কথা ভেবে এবং আপত্কালীন অনেক দেশীয় সুযোগ সুবিধার জন্য এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।এ ছাড়াও যে সকল স্থানে এয়ারবেস ইতিমধ্যে রয়েছে তার প্রায় কাছাকাছি অঞ্চলে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বেলদা থেকে কিছুটা দূরেই খড়্গপুরের সালুয়াতে রয়েছে এয়ার বেস ক্যাম্প। তাঁর জন্য বেলদার এই বাখরাবাদ অঞ্চলটিকে বেছে নেওয়া হয়েছে।

এখন শুধুমাত্র রাস্তা সম্প্রসারণ মাপ ঝোকের কাজ চলছে।কাজটি সম্পূর্ণ হতে এখনও অনেক সময় সাপেক্ষ ব্যাপার।তবে পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড় ব্লকের বাখরাবাদ এলাকায় এই ধরনের আপত্কালীন যুদ্ধ বিমান ওঠা নামার ব্যবস্থা চালু হওয়ায় খবরে খুশি এলাকাবাসীরা। তাদের আগ্রহও চোখে পড়ার মতন।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট