বিজেপি’‌র নবান্ন অভিযানে ধুন্ধুমার কাণ্ড


বৃহস্পতিবার,০৮/১০/২০২০
484

কলকাতা : বিজেপি’‌র নবান্ন অভিযানে ধুন্ধুমার কাণ্ড। আগে থেকেই নবান্ন দুই দিনের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা করেছিল রাজ্য সরকার। তারপরেও বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে অশান্তি শহরের বিভিন্ন জায়গায়।সাঁতরাগাছিতে বিক্ষোভকারীদের উপর পুলিশ রং মেশানো জল ছুড়েছে বলে অভিযাগ বিজেপি’‌র। অবার এক বিজেপি কর্মীর কাছ থেকে হাওড়া ময়দান থেকে উদ্ধার হয়েছে আগ্নেয়াস্ত্র। অপরদিকে অর্জুন সিং এবং লকেট চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে হেস্টিংস মোড়ে অবস্থান শুরু করেছিল বিজেপি। তাতে যোগ দিয়েছিলেন ভারতী ঘোষ এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়। হেস্টিংস থেকে মিছিল শুরু হতেই তাদের আটকে দিল পুলিশ। সেই মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন স্বপন দাশগুপ্ত। পুলিশ তাাদের আটকালে পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়। ইটবৃষ্টি এমনকী কাচের বোতলও পুলিশকর্মীদের দিকে ছোঁড়া হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে বাধ্য হয়ে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। এখানে ছিলেন অর্জুন সিং, লকেট চট্টোপাধ্যায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়-সহ আরও অনেকে। জলকামানও চালানো হয়। কিছুটা পিছিয়ে গিয়ে অবরোধ শুরু করে বিজেপি।একাধিক জায়গায় বিজেপি কর্মীদের আটকানো হয়েছে। নবান্নের দিকে যাওয়ার জন্য ব্রিজে ওঠার যে রাস্তা, সেই রাস্তার মুখেই আটকানো হয় বিজেপি নেতা কর্মীদের। রাকেশ সিং ও তাঁর দলবল ব্যারিকেডে উঠে পড়েন। তাঁদের উপর লাঠিচার্জ হয় বলে অভিযোগ।

পালটা ইটবৃষ্টি এমনকী কাচের বোতলও পুলিশকর্মীদের দিকে ছোঁড়া হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে বাধ্য হয়ে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। দফায় দফায় উত্তেজনা তৈরি হয় জিটি রোড এবং হাওড়া ময়দানে। সেখানে বোমাবাজির অভিযোগও উঠেছে। আগ্নেয়াস্ত্র-সহ একজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, ধৃত ওই ব্যক্তি তেজস্বী সূর্যের ঘনিষ্ঠ। কিছুক্ষণের জন্য অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয় হাওড়া ব্রিজেও। সেখানে দিলীপ ঘোষকেও লাঠির ঘা খেতে হয় বলেই অভিযোগ। বিজেপি রাজ্য সভাপতির দাবি, লাঠির আঘাতে নাকি তিনি মাটিতে পড়েও যান।সাঁতরাগাছিতে বিক্ষোভকারীদের উপর পুলিশ রং মেশানো জল ছুড়েছে বলে অভিযাগ বিজেপি’‌র। আর তার জেরেই নাকি রক্তবমি করা শুরু করেন বিজেপি’‌র নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁকে অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় বলে খবর। এই পরিস্থিতিতে ক্ষেপে ওঠে বিজেপি কর্মীরা। তারা সাঁতরাগাছিতে বিক্ষোভ দেখানোর নাম করে ব্যারিকেড ভেঙেছেন বলে অভিযোগ। পুলিশের হামলায় জখম হয়েছেন বেশ কয়েকজন। তবে এত কিছুর পরেও গেরুয়া শিবিরের একজনও নবান্নে পৌঁছতে পারেননি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট