ঝাড়গ্রামে কুড়মি সমন্বয় মঞ্চের আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু হল


বৃহস্পতিবার,১০/১২/২০২০
221

ঝাড়গ্রাম : মেদনীপুরে মুখ্যমন্ত্রীর সভার দিন ঝাড়গ্রাম জেলা শাসকের অফিসের বাইরে এসটি সহ মোট ২৬ দফা দাবিকে সামনে রেখে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করে কুড়মী সমন্বয় মঞ্চ । ডেপুটেশন জমা দেয়া হয় ঝাড়গ্রামের জেলা শাসকের কাছে কিন্তু অবস্থান বিক্ষোভ চার দিনে পা দিলোও সরকারের কাছ থেকে কোন সদুত্তর না পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেল চারটে থেকে ঝাড়গ্রাম কুড়মী সমন্বয় মঞ্চের পক্ষ থেকে ঝাড়গ্রাম জেলা শাসকের দপ্তরের নিকটে আমরণ অনশনে বসলো । গত ৭ই  ডিসেম্বর ঝাড়গামে কুড়মী  সমন্বয়ক মঞ্চের পক্ষ থেকে  জেলাশাসকের দপ্তরে নিকট ২৬ দফা দাবি নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু করেন, তাদের দাবির মধ্যে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য দাবি হলো কুড়মী জাতিকে এসটি তালিকাভুক্ত করা, কুরমালী ভাষার অষ্টম তফসিলি অন্তর্ভুক্তি করণ, এবং ঝাড়গ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় টি রঘুনাথ মাহাত নামে নামাঙ্কিত করণ । এই অবস্থান বিক্ষোভ তিন দিন পার  হয়ে চার দিন পা দিলেও রাজ্য সরকারের কাছে থেকে কোনো সদর্থক উত্তর তাদের কাছে না আশায় তারা বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টা থেকে আমরণ অনশন কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন ।

বিজ্ঞাপন

কুড়মী সমন্বয় মঞ্চের এক নেতৃত্ব রাজেশ মাহাত বলেন, দীর্ঘদিনের বিভিন্ন দাবিদাওয়া মোট ২৬ দফা দাবি নিয়ে সোমবার শুরু হওয়া অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি সরকারের কাছে কোনো মূল্য নেই। তাই সরকার এখনো পর্যন্ত কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি । তাই আমাদের দাবি যতক্ষণ না  পূরণ হয় ততক্ষণ পর্যন্ত আমরণ অনশন চালিয়ে যাব । তিনি আরও বলেন , আমরা কারো কাছে ভিক্ষা চাইছি না । আমরা আমাদের অধিকার চাইছি । না দিলে ছিনিয়ে নিতে হবে ।

এদিন তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক ছত্রধর মাহাত এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন , কুড়মীদের আন্দোলনকে আমি সমর্থন করি কারন আমি ওই সমাজের লোক । ওদের দাবিদাওয়া নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে তিনি বলেছেন যতটা সম্ভব সমাধান করা হবে এছাড়াও এমন কিছু দাবি রয়েছে যেগুলো আমাদের হাতে নেই কেন্দ্রের হাতে ক্ষমতা রয়েছে । ছত্রধর মাহাতো আরও বলেন আমি লালগড় ব্রিজটির নাম রঘুনাথ মাহাতোর নামে করার জন্য প্রস্তাব দিয়েছি ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট