আগে ভ্যাকশিন, পরে নির্বাচন: শুভেন্দু ; ভোটে যেতে বিজেপি কি ভয় পাচ্ছে ?


শুক্রবার,৩০/০৭/২০২১
551

রাজ্যের বিধায়ক শূণ্য সাতটি বিধানসভা আসনে এই মুহূর্তে নির্বাচনে যেতে কি ভয় পাচ্ছে বিজেপি? যে গেরুয়া ব্রিগেড রাজ্যে দু’শোর বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতা দখলের স্বপ্নে বিভোর ছিল তারাই এখন শূণ্য আসন গুলিতে নির্বাচন চাইছে না। বিধানসভা ভোটে রাজ্যে চরম ভরাডুবির কারণেই কি বিজেপির এই পিছুটান? শুক্রবার রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এই মুহূর্তে নির্বাচন না করার পক্ষে মত দিয়েছেন। এই বিজেপি নেতার বক্তব্য, যতক্ষণ না আঠারো উর্দ্ধ সমস্ত রাজ্যবাসীর ভ্যাক্সিনেশন শেষ হচ্ছে ততক্ষণ নির্বাচন নয়। যখন করোনা গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী সেই সময় বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় পশ্চিমবঙ্গে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সহ বি জে পির এক ঝাঁক কেন্দ্রীয় নেতা করোনাকে উপেক্ষা করে পশ্চিমবঙ্গে সভা সমাবেশ করেন। করোননা পরিস্থিতি থেকে সাধারণ নাগরিকদের রেহায় দিতে যখন তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনের কাছে দফা কমানোর আবেদন করা হয়েছিল তখন বিজেপি বিরোধিতা করেছিল। প্রশ্ন এখানেই। ভয় পেয়েই কী জনগণের মুখোমুখি হতে চাইছেন না রাজ্যের বিজেপি নেতারা?

রাজ্যে সাতটি বিধানসভা কেন্দ্র এখন বিধায়ক শূণ্য। প্রার্থী মৃত্যুর কারণে মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে নির্বাচন করা যায়নি। সাংসদ পদ বাঁচাতে কোচবিহারের দিনহাটা এবং নদীয়ার শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিজয়ী বিজেপি বিধায়করা পদত্যাগ করেছেন। খড়দহের বিজয়ী তৃণমূল প্রার্থী কাজল সিনহা নির্বাচনের ফল ঘোষণার আগেই করোন্য় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ভবানীপুর বিধানসভার বিধায়ক শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ইস্তফা দিয়েছেন। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার গোসাবায় বিধায়ক জয়ন্ত নস্করের মৃত্যুতে আসনটি ফাঁকা হয়েছে। রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এই সাতটি আসনে দ্রুত নির্বাচন সেরে ফেলার জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করা হয়েছে। রাজ্যে এই মুহূর্তে কোভিড পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। এখনই নির্বাচন সেরে ফেলার উপযুক্ত সময় বলে মনে করে জোড়া ফুল শিবির। রাজ্যের শাসক দলের সাংসদরা দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনের দপ্তরেও দরবার করেছেন নির্বাচন চেয়ে। এখন দেখার নির্বাচন কমিশন শেষ পর্যন্ত কোন পথে হাঁটে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট