রাজ্যের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে কুনাল ঘোষ


বৃহস্পতিবার,১৭/০২/২০২২
205

রাজ্যের শিক্ষায় ব্যবস্থায় পিপিপি মডেল আনতে চায় সরকার। বিষয়টিকে সামনে রেখে বিরোধীরা প্রতিবাদে নেমেছে। সে প্রসঙ্গে এক প্রতিক্রিয়ায় কুণাল ঘোষ বলেন, কেন্দ্র যদি পিপিপী মডেল আনতে পারে রাষ্ট্রায়ত্ব ক্ষেত্রে তবে রাজ্য কেন নয়। লক্ষ্য রাখতে হবে রাষ্ট্রের পরিপন্থী হয়। আর শিক্ষা ক্ষেত্রে এই মডেল চালু হলে প্রভূত উন্নতি হবে। অনেক বেসরকারি উদ্যোগপতিরা বিনিয়োগে আগ্রহী হবে যা আখেরে শিক্ষার্থীরা লাভ পাবে। অন্যদিকে চাকরির প্রয়োজন সকলের। তাই ভালো উপার্জনের পথও হতে পারে।

সি এ এ ও এন আর সি নিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এর বক্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া জানান কুণাল ঘোষ। কটাক্ষ করে বলেন, উনি আগে বাংলা ও নিজের দলকে বুঝুন ভালো করে। তারপর এগুলি নিয়ে আলোচনা করা যাবে। সবে ক্ষমতায় এসেছেন উনি। তাই ওনার আগে দল সামলানো উচিত।

সামনেই ১০৮ পুরসভার নির্বাচন। কিন্তু বেশির জায়গায় প্রার্থী দিতে পারেনি বিজেপি। কটাক্ষের সুরে কুণাল ঘোষ জানান এর পর প্রার্থীর জন্য বিজেপি কে কাগজে বিজ্ঞাপন দিতে হবে।

বাংলা ভাগের বিজেপির বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া কুণাল ঘোষ জানান বিজেপি প্রথম থেকেই বিচ্ছিন্নতা বাদী রাজনীতি করছে। রাজনৈতিক ভাবে এঁটে উঠতে না পেরে বাংলা ভাগের চক্রান্ত করছে। যা মোটেই সমীচীন নয়। তাহলে গত বিধানসভা নির্বাচনে তাদের ইশতেহার প্রকাশের মাধ্যমে জানানো উচিত ছিল।

সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারী আশুতোষ কলেজ ছাত্র ছাত্রীদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। এর পরেই শুভেন্দু কে কাঁথি তে ছাত্র ছাত্রীদের একই কান্ড বোঝাতে দেখা যায়। প্রতিক্রিয়ায় কুণাল ঘোষ জানান আসলে দুয়ারে শুভেন্দু মনে তৃণমূলের দুয়ারে শুভেন্দু। তাই তৃণমূলের মত আদব কায়দা নকল শুরু করেছেন। কারন কাঁথি তে ইতিমধ্যে অধিকারী প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানির বোর্ড মুছে গিয়েছে।

দিলীপ ঘোষের বক্তব্য কে আমরা ধরছিনা। আসলে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে উনি একটু বেশি বলছেন। ওনার মনে রাখা উচিত মেয়াদ ফুরানোর আগেই অনেক পদ থেকে হটিয়ে দেওয়া হয়েছে। জানালেন কুণাল

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট