ফুল প্রেমীদের কাছে বাংলার এক এবং অদ্বিতীয় পর্যটন কেন্দ্র


বৃহস্পতিবার,১৭/০২/২০২২
8602

শ্রী পদ্ম: ফেসবুক ও সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে পুরাতন চাপড়া এখন ফুল প্রেমীদের কাছে এক এবং অদ্বিতীয় শীতকালীন পর্যটনস্থলে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন প্রচুর লোকের আগমন হয় এখন এখানে। তাই এ বছর যারা এখানে বেড়াতে আসবেন তাদের স্বাগত জানাতে পুরাতন চাপড়ার মাঠ ফুলে সবজিতে পরিপূর্ণ হয়ে উঠেছে ৷ আপনি যখনই পূর্ণনগরথেকে চাপড়ার রাস্তায় প্রবেশ করবেন তখনই রাস্তার দুই ধারেই ফুলের চাষ দেখতে পাবেন ৷ গাঁদা,রজনীগন্ধা,চন্দ্রমল্লিকা,বেবী,পমপম,গ্লাডিওলাস,ডালিয়া,সূর্যমুখী,জারবেরা,এস্টার,গোলাপ ছাড়াও কত রঙ বাহারি ফুলের দেখা মিলবে। দেখতে পাবেন শীত কালীন সব্জির চাষও। আর উপরি পাওনা হিসাবে পাবেন পরিযায়ী পাখিদের আনাগোনা আর সন্ধ্যার আগে পাখিদের ঘরে ফেরার কিচিরমিচির।
শহুরে ইঁট,কাঠ,পাথরের, একঘেয়ে নাভিশ্বাস ওঠা ইঁদুর দৌড়ের জীবনের বাইরে বিশুদ্ধ অক্সিজেন নিতে অবশ্যই আপনার গন্তব্য হতে পারে নদীয়ার অন্যতম ও ব্যস্ততম শহর রানাঘাট থেকে মাত্র ৭ কিলোমিটার দূরের গ্রাম পুরাতন চাপড়া তে। ফুলের বাগিচায় পিকনিকের মজাও নিতে পারবেন।
শিয়ালদা ,লালগোলা অথবা বনগাঁ থেকে প্রথমে রানাঘাটের স্টেশনে আসুন ৷এরপর স্টেশনের বাইরে ৩০ টাকা জন প্রতি টোটো ভাড়ায় অথবা রাথতলা বাস স্ট্যান্ড থেকে বাসে পূর্ন নগর হাই স্কুল নেমে সেখান থেকে টোটো বা ভ্যান রিক্সায় পৌঁছে যান ফুলের রাজ্যে ৷ তাছাড়া যদি মনে করেন রথ তলা বাস স্ট্যান্ড থেকে চাপড়া গ্রামে আসার অনেক টোটো পেয়ে যাবেন ৷ রানাঘাট স্টেশনে নেমে টোটো রিজার্ভ করেও চাপড়ার ফুলের বাগানে যেতে পারেন। খরচ বেশি হলেও টোটো রিজার্ভ করে আসাটাই সব চেয়ে বেশি সুবিধাজনক। গাড়ি নিয়ে গেলে পার্কিং-এর জায়গা আছে। নভেম্বর থেকে শুরু করে মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ফুল দেখতে পাবেন। সরকারের জারি করা স্বাস্থ্য বিধি অবশ্যই মেনে চলুন।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট