আসামি গ্রেফতারের দাবিতে থানার সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন এবং ডেপুটেশন


শুক্রবার,১১/১১/২০২২
50

ত্রিপুরা,বিক্রম কর্মকার:

ত্রিপুরা প্রদেশ যুব তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে দক্ষিন ত্রিপুরা জেলা বিলোনিয়া কলেজ স্কোয়ার এলাকায় গত সোমবার একটি দোকানে হামলা চালিয়ে ও ভাংচুর সহ লুটপাটের ঘটনা ঘটে । যে দোকানে হামলা সংগঠিত হয় সেই দোকান মালিকের নাম অশোক মজুমদার । দোকান মালিক অশোক মজুমদার দক্ষিন ত্রিপুরা জেলা বিলোনিয়া যুব তৃনমুল কংগ্রেসের নেতা রাহুল মজুমদারের পিতা । ছেলে তৃনমুল কংগ্রেস করার অপরাধে এই হামলা সংগঠিত করে একদল দুষ্কৃতী এমনই অভিযোগ । ঘটনার দিনই অভিযুক্তদের নাম ধাম দিয়ে দক্ষিন ত্রিপুরা জেলা বিলোনিয়া থানাতে লিখিত অভিযোগ পত্র জমা দেয় দোকান মালিক অশোক মজুমদার । তিনদিন অতিক্রান্ত হওয়ার পরও পুলিশ একজন অভিযুক্তকেও আটক করতে পারেনি। পুলিশের এই হেন ভুমিকা মেনে নিতে পারেনি ত্রিপুরা প্রদেশ তৃনমুল কংগ্রেস। তিন অভিযুক্ত দুষ্কৃতিকারীকে গ্ৰেফতার করে,‌ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সরব হলো দক্ষিন ত্রিপুরা জেলা বিলোনিয়া তৃনমুল কংগ্রেস।

ত্রিপুরা প্রদেশ যুব তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে বিলোনিয়া থানার এসে প্রতিবাদ বিক্ষোভ সংগঠিত করে , এবং দোষীদের গ্ৰেফতারের দাবিতে স্লোগান তুলেন তৃণমূল নেতৃত্বরা। তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্বরা কিছু সময় বিক্ষোভ দেখানোর পর চার জনের এক প্রতিনিধি দল সাক্ষাৎ করেন বিলোনিয়া থানায় ওসি পরিতোষ দাসের সাথে। প্রতিনিধি দলে ছিলেন, দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলা বিলোনিয়া তৃণমূল কংগ্রেসের যুব নেতা রাহুল মজুমদার, তৃনমূল কংগ্রেসের নেতা প্রশান্ত সেন, ত্রিদিব দত্ত, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য নেতা অহিন্দ্র বসু, এবং কাজল বণিক । তৃনমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠেছে, বিলোনিয়া থানাতে তিন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ পত্র জমা দেওয়ার পর থেকে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে যুব তৃনমূল কংগ্রেসের পরিবারের লোকজন । বিলোনিয়া থানার ওসি পরিতোষ দাস এদিন তৃণমূল নেতৃত্বদের আশ্বস্ত করেন তিনি বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছেন এবং দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলা বিলোনিয়াতে যাতে কোন ধরনের অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি না হয় তার দিকে নজর রেখে চলছেন।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট