মিষ্টি ব্যবসায়ীদের জন্য গড়ে উঠবে ‘মিস্টান্ন’, ২০ কাঠা জমি দান রাজ্যের


বুধবার,৩০/০৮/২০২৩
416

মিষ্টি ব্যবসায়ীদের উন্নয়নে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিয়েছে রাজ্য সরকার। এর মধ্যেই মিষ্টি ব্যবসায়ীদের জন্য বিশেষ উদ্যোগের কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার মিষ্টান্ন ব্যবসায়ী সমিতির সঙ্গে মিলন উৎসবের সভায় উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে ঘোষণা করেন, রাজ্যের সব জেলার ভালো মিষ্টিগুলোকে এক ছাদের তলায় নিয়ে শহরে তৈরি হবে মিষ্টি হাব। এর জন্য ইকো পার্কের কাছে ২০ কাঠা জমি দান করার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী।এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, মৌলালির কাছে মিষ্টি হাব হিসেবে একটি বিল্ডিং তৈরি হচ্ছে। ২০টি স্টল থাকবে। MSME দফতরের উদ্যোগে নতুন এই প্রকল্পের নাম, ‘মিষ্টি উদ্যোগ’। পাশাপাশি তিনি জানান, বিশ্ববাংলা সেন্টারের কাছেও একটি মিষ্টি হাব তৈরি হয়েছে। সেই মিষ্টি হাবের বিপরীতেই ‘মিষ্টান্ন’ তৈরি হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, বাংলার মিষ্টির সঙ্গে সাধারণ মানুষকে পরিচিত করতেই এই উদ্যোগ। সভায় মমতা বলেন, ১লক্ষ ২০ হাজার মিষ্টির দোকান আছে বাংলায়। ১০ লক্ষ মানুষ এই ব্যবসার সঙ্গে প্রতক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে যুক্ত। ১লক্ষ কোটি টাকার ব্যবসা হয়। ৬ লক্ষ কোটি লিটার দুধ প্রতিদিন সংগ্রহ করা হয়। মমতা বলেন, কলকাতায় মিস্টি হাব করেছেন। বর্ধমানে মিস্টি হাব করেছেন। মালদার আম আমরা সংরক্ষণ করতে চাই।
১০ কোটি মানুষ মিস্টি খায়। মিস্টি কথা, মিস্টি ভাষা, মিস্টি ব্যবহার যেন আমাদের সবার হয়। মালদা য় মিস্টি হাবের কথা বলেছিলাম। বাংলার দারিদ্রতা ৪০ শতাংশ কমেছে। আমরা বাংলার শাড়ি তৈরী করেছি
বসিরহাটে মিস্টি হাব করেছি। মিস্টি উদ্যোগ বলে ক্লাস্টার হচ্ছে কলকাতায়। বাঙালি আইডেন্টিটির সঙ্গে মিস্টি যুক্ত হয়ে আছে। মৌলালির কাছে, ২০ ট স্টল থাকবে। মমতা বলেন, ২০ কাঠা জমি দেব, ১ টাকায়, নাম দিলাম মিস্টান্ন, নবান্নের সঙ্গে মিল রেখে।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট