গঙ্গাসাগর মেলা পরিদর্শন করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়


মঙ্গলবার,০৯/০১/২০২৪
405

গঙ্গাসাগর মেলা পরিদর্শন করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুজো দিলেন কপিল মুনির মন্দিরে। সোমবার কলকাতা থেকে গঙ্গাসাগর এসে পৌঁছান মমতা। গঙ্গাসাগর হেলিপ্যাড ময়দানে একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। তারপর ভারত সেবাশ্রম সংঘ এবং কপিল মুনির মন্দিরে আসেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হন। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলেন গঙ্গাসাগর মেলায় কেন্দ্রীয় সরকার কোন অর্থ দেয় না। অথচ কুম্ভ মেলায় টাকা দিচ্ছে কেন্দ্র। অনেক দুর্গম পথ পেরিয়ে গঙ্গাসাগরে আসতে হয়। এক সময় বলা হত সব তীর্থ বারবার গঙ্গাসাগর একবার। রাজ্য সরকার এই গঙ্গাসাগরের পরিকাঠামো উন্নত করেছে। পরিবহন ব্যবস্থা উন্নত করেছে। গঙ্গাসাগর সাজিয়ে তোলা হয়েছে আলোর মালায়। গঙ্গাসাগরে ভাঙ্গন বন্ধ করতে কাজ করা হচ্ছে। এখন আর একবার বলেন না কেউ বলেন সব তীর্থ একবার, গঙ্গাসাগর বারবার। কেন্দ্রীয় সরকার কেন গঙ্গাসাগর মেলাতে জাতীয় মেলা স্বীকৃতি দিল না তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। যেখানে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে লক্ষ লক্ষ মানুষের সমাগম ঘটে তারপরও কেন গঙ্গাসাগর মেলা জাতীয় মেলা স্বীকৃতি পাবে না? প্রশ্ন রাখেন মমতা।
এদিন কপিল মুনির মন্দিরে পুজো দেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। গঙ্গাসাগর কপিলমুনি মন্দিরের মহন্তরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্বাগত জানান। পুজো দেওয়ার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, তিনি বারবার এখানে আসেন। এখানকার পরিবেশ তার ভীষণ ভালো লাগে। তার আগে ভারত সেবাশ্রম এ যান মমতা। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর হাতের কাজের প্রকল্পের সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী বলেন ভারত সেবাশ্রম সংঘ যেভাবে মানুষের সেবায় নিয়োজিত তাই এখানে আসতে পেরে তিনি খুশি। ভারত সেবাশ্রম সংঘের এই সামাজিক আত্মিক কাজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনুপ্রাণিত করে।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট