সন্দেশখালীর বদনামে ক্ষুব্ধ এলাকার মানুষ, দুষছেন বিজেপিকে


শনিবার,০২/০৩/২০২৪
1468

গোটা রাজ্যে চর্চার কেন্দ্র বিন্দুতে সন্দেশখালি। সন্দেশখালি নিয়ে নানান প্রচার চলছে। সেখানে মহিলারা নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন বলে প্রচারের শিরোনামে উঠে এসেছে। দিনের পর দিন ঘরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠে এসেছে। এই নিয়ে গোটা রাজ্য গোটা দেশ চর্চিত। এলাকার যুবক-যুবতীরা বলছেন বাইরে তারা যেতে পারছেন না, কান পাততে পারছেন না। যেখানেই যাচ্ছেন সন্দেশখালির মানুষ শুনে বাঁকা চোখে দেখছে। বলছেন বদনাম করা হচ্ছে। বিজেপি ও বিরোধীরা বদনাম করছে।
সন্দেশখালিতে একাধিক অভিযোগ জমা পড়ে পাড়ায় সমাধান কর্মসূচিতে। দুয়ারে সরকারেও অনেক অভিযোগ জমা পড়ে। বিডিও-র মাধ্যমে এইসব অভিযোগ খতিয়ে দেখার কাজ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার সন্দেশখালির বেড়মজুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার একাধিক এলাকায় সরকারি আধিকারিকরা সেইসব অভিযোগ খতিয়ে দেখেন। ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরের আধিকারিকরা পাড়ায় পাড়ায় ঘুরে সেইসব অভিযোগের বাস্তবতা খতিয়ে দেখেন। আধিকারিকরা জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে সমস্ত কিছু খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

গোটা দ্বীপে মোতায়েন পুলিশ বাহিনী নজর রাখছে পরিস্থিতির ওপর। যে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সতর্ক পুলিশ। গ্রামে গ্রামে টহলদারি অব্যাহত পুলিশের। যেখান থেকে অভিযোগ আসছে সঙ্গে সঙ্গে সেখানে পৌঁছে গিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। কোনওরকম উস্কানি নয় বা কোনওরকম প্ররোচনায় পা না দেওয়ার বার্তা দিচ্ছে পুলিশ। এদিকে নানান রটনাও চলছে সমান তালে। সন্দেশখালি নিয়ে মিথ্যা প্রচারে বেড়মজুর গ্রামের বহু মানুষ ক্ষুব্ধ। সন্দেশখালিকে বদনাম করার ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে অভিযোগ তাদের।
এদিকে মঙ্গলবার আজ বাম মনোভাবাপন্ন সাংস্কৃতিক কর্মী, অভিনেতা, চলচ্চিত্র শিল্পীদের কয়েকজন সন্দেশখালিতে আসেন। সেই দলে ছিলেন অভিনেতা বাদশা মৈত্র, দেবদূত ঘোষ, সৌরভ পালোধী, জয়রাজ ভট্টাচার্য, কবি মন্দাক্রান্তা সেন, কাজি কামাল নাসেররা। অন্যদিকে, সন্দেশখালিতে যাওয়ার পথে আটকানো হয় আইএসএফ বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকীকে। সায়েন্স সিটির কাছে তাঁকে আটকে দেয় পুলিশ। সন্দেশখালির পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক করতে সক্রিয় পুলিশ। এলাকায় টহলদারির পাশাপাশি কড়া নজর রাখছে।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট