২৬ তারিখের পর চলে যাবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। তখন থাকবো আমরাই : তৃণমূল বিধায়ক


বৃহস্পতিবার,১৮/০৪/২০২৪
247

২৬ তারিখের পর চলে যাবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। তখন থাকবো আমরাই। বিতর্কিত মন্তব্য চোপড়ার তৃণমূল বিধায়ক হামিদুল রহমানের। নির্বাচনী প্রচারে তার মন্তব্য ঘিরে চরম বিতর্ক। চোপড়ার তৃণমূল বিধায়ক দার্জিলিংয়ের তৃণমূল প্রার্থী গোপাল লামার সমর্থনে নির্বাচনী জনসভায় যোগ দেন। এই জনসভার মঞ্চে দাঁড়িয়ে তিনি জনতার উদ্দেশ্যে বলেন প্রত্যেকটা বুথ থেকে নব্বই শতাংশ ভোটে লিড দিতে হবে দলীয় প্রার্থীকে। কারণ পঞ্চায়েত ভোটে বিনা কনটেস্টে এইসব বুথে জয় এসেছে। যদি নব্বই শতাংশের বেশি ভোটে লিড না দিতে পারেন তাহলে পঞ্চায়েত প্রধান ও সদস্যদের পরে বুঝে নেব। আর বিজেপি সিপিএম সহ অন্যান্য কর্মী সমর্থকদের উদ্দেশ্যে চোপড়ার বিধায়কের বার্তা, ২৬ তারিখ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে। তারপর কেন্দ্রীয় বাহিনী চলে যাবে। তখন থাকবো আমরা। মানুষের ভালো-মন্দ সবকিছু দায়িত্ব আমাদের উপর বর্তাবে। বিধায়ক বলেন দয়া করে ভোট নষ্ট করবেন না বিজেপি বা অন্যান্যদের দিয়ে। সাধারণ মানুষের যাবতীয় কাজ তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরাই করবে। বিপদে-আপদে আমাদের ফোর্স ছুটে যাবে মানুষের পাশে। ভালো-মন্দ সব দেখব আমরা। চোপড়ার তৃণমূল বিধায়কের এই মন্তব্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে বিজেপি সহ বিরোধীদলের নেতারা। তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে অভিযোগ সামনে এনেছে তারা। জবাবে তৃণমূল বিধায়ক হামিদুর রহমান বলেন, তার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করছে বিজেপি সহ অন্যান্যরা। নির্বাচনের সময়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এটা স্বাভাবিক বিষয়। বছরের বাকি সময়ে আমাদের দলের লোকেরাই মানুষের পরিষেবা দেন। সে কথায় আমার বক্তব্যে বলেছিলাম। এরমধ্যে অন্য কোন ভাবনা ছিল না। শুধুমাত্র রাজনীতি করার জন্য বিজেপি ও বিরোধীরা তার বক্তব্য নিয়ে বিরোধিতা করছে। তার এই বক্তব্যের মধ্যে কোন অসৎ উদ্দেশ্য ছিল না বলে দাবি চোপড়ার তৃণমূল বিধায়কের।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট